মেনু নির্বাচন করুন

ছবি
শিরোনাম
৪ নং গালুয়া ইউনিয়নে আপনাকে স্বাগতম
বিস্তারিত
বাংলাদেশে পেঁপে খুবই জনপ্রিয়। শুধুমাত্র ফল নয় সবজি হিসেবেও এর ব্যাপক ব্যবহার রয়েছে। পেঁপেতে প্রচুর ক্যারোটিন ও ভিটামিন সি আছে। পরিচর্যা করলে সব ধরনের মাটিতেই পেঁপে চাষ করা যায়। সাধারণত এক বছরের মাথায় পেঁপে গাছে ফল ধরে। একটি গাছে বছরে ২০ থেকে ৫০টি ফল ধরে ৪নং গালুয়া ইউনিয়নে বর্তমানে পুটিয়াখালি, গালুয়া দূর্গাপুর, কানুদাসকাঠীগ্রামে অনেক জায়গায়ই রয়েছে পেপে চাষ। এখানকার চাষীরা পেপে চাষ করে লাভবান হয়েছে,গালুয়া ইউনিয়নে পানি কচুর চাষ করা হয়।বরিশাল অঞ্চলে প্রধানত ধানের আবাদ হতো। কালের পরিক্রমায় এখন বরিশালেও পৌছে গেছে পান চাষ। পান এখন সারা দেশেই হয়। জাত ভেদে খাসিয়া, রাজশাই, মহেশখালীর পানের সুনাম রয়েছে। এছাড়া প্রাচীনকাল থেকে এ অঞ্চলে আবাদ হচ্ছে ভারতীয় বাংলা পান প্রজাতির ভবানী ও ভাবনা। বেনারসী, রাজনগর, গাছপান ইত্যাদি জাতেরও চাষাবাদ চালু আছে। গালুয়া ইউনিয়নে পান এর চাষ করা হয় এবং চাষিরা খুব লাভ জনক অবস্থায় আছে।